Site Statistics
  • Total visitors : 17,852
  • Total page views: 23,780

Privacy Policy

লোন এমোর্টাইজেশন সিডিউল

0 Comments

প্রিয় দর্শকবৃন্দ, সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি আমি ফাহাদ বিন বেলায়েত।
আজকে দেখবো এমন একটি ফর্মেট, যেটা দিয়ে আপনারা ব্যাংক এর আগে কাজ করতে পারবেন। বুঝতে পারবেন ব্যাংক আপনাদের ঠকাচ্ছে কি না।

loan amortization schedule

এইযে ফর্মেটটা দেখছি এটার নাম লোন এমোর্টাইজেশন শিডিউল।

এটা দিয়ে কি করা যায়?

ব্যাংক থেকে লোন নেয়া হলে প্রতি মাসে একটা নির্দিষ্ট পরিমান টাকা পেমেন্ট করতে হয়। এটাকে ইন্সটোলম্যান্ট বলে।
প্রতি ১ বসরে ১২ টা ইন্সটোলম্যান্ট পেমেন্ট করতে হয়, সো ৫ বছরের জন্য হলে ৬০ টা আর ১০ বছরের জন্য হলে ১২০ টা ইন্সটোলম্যান্ট।

এই ইন্সটোলম্যান্ট এমাউন্ট লোনের মেয়াদ আর ইন্টারেস্ট রেট এর জন্য কম বেশি হয়ে থাকে।

এই ফর্মেটে মুলত ইন্টারেস্ট রেট আর লোনের মেয়াদের উপর ভিত্তি করে প্রতি মাসের ইন্সটোলম্যান্ট এমাউন্ট বের করা হয়।

প্রথম আমরা লোন এমোটাইজেশন সিডিউল ফরমেট এ আসি।

  • লোন এমাউন্ট  ১ লক্ষ টাকা
  • এনুউয়াল ইন্টারেস্ট রেট ৯.৫%
  • লোনের মেয়াদ ১ বছর
  • ১ বছরে ১২ টা পেমেন্ট দেয়া হবে
  • লোন স্টার্ট ডেট, আজকের ডেট
  • এক্সট্রা পেমেন্ট: ০

 

দেখতে পাচ্ছি:

সিডিউল পেমেন্টটি, মানে ইন্সটোলম্যান্ট এমাউন্ট, ৮ হাজার ৭ শত ৬৮ টাকা ৩৫ পয়সা।

আর মোট ইন্টারেস্ট আসবে ৫ হাজার ২ শত ২০ টাকা।


এখানে বোঝার বিষয় হলো, ১ লাখ টাকার ৯.৫% হলো ৯ হাজার ৫ শত টাকা৷ কিন্তু ব্যাংকের লোনের টাকা যেহেতু প্রতি মাসে পেমেন্ট করতে হয় তাই সেই হিসেবে ইন্টারেস্ট কমে আসে।

এমোর্টাইজেশন সিডিউল দেখতে পাচ্ছি:

 

এখানে দেখুন ১২ মাসের হিসাব চলে এসেছে। প্রতি মাসে এই টাকাটা পেমেন্ট করতে হবে, যার মধ্যে;

প্রতি মাসে এই টাকাটা পেমেন্ট করতে হবে

যার মধ্যে লোনের টাকা

এবং ইন্টারেস্ট হচ্ছে এটি

দেখা যাচ্ছে প্রতি মাসের ইন্সটোলম্যন্ট এ ক্রমান্বয়ে লোনের পরিমান বাড়তে থাকে আর ইন্টারেস্ট এমাউন্ট কমতে থাকে। কিন্তু দুটর যোগ ফল, মানে ইন্সটোলম্যন্ট সমান থাকে।

প্রতি মাস শেষে লোনের অবশিষ্ট অংশ দেখাচ্ছে এন্ডিং ব্যালেন্স ফিল্ডে। 

আর প্রতি মাস শেষে ইন্টারেস্ট পেমেন্ট এমাউন্ট দেখাচ্ছে কিউমুলেটিভ ইন্টারেস্ট ফিল্ডে।

এখানে দেখতে পারেন কতোগুলো কিস্তি বা ইন্সটোলম্যন্ট দেয়ার পর লোনের টাকা আর কতো বাকি আছে।


এভাবে এন্টার ভ্যালু অপশনে ভ্যালূ বসিয়ে আপনার লোনের হিসাব আপনি নিজেই করতে পারেন।
দেখতে পারেন ব্যংক আপনার সাথে কোনো ধোকাবাজি করছে কি না।

এই ফর্মেটে এন্টার ভ্যালু অপশন ছাড়া কোথাও হাতে চেঞ্জ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *